স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022-2023 | Swami Vivekananda Scholarship (SVMCM)

(SVMCM 2022-2023) স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের অনলাইন আবেদন পদ্ধতি, রিনুয়াল পদ্ধতি, কারা আবেদন করতে পারবে (এলিজিবিটি ক্রায়টেরিয়া), কত টাকা পাওয়া যায়, স্কলারশিপ এর টাকা কবে ঢুকবে, আবেদন করার লাস্ট ডেট, স্কলারশিপে এ আবেদন করতে কি কি ডকুমেন্ট লাগবে, স্ট্যাটাস চেক কীভাবে করবেন এইসব গুরুত্বপুর্ণ তথ্যের ব্যাপারে জানুন আজকের এই প্রতিবেদনে।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ আর্থিক ভাবে দুর্বল সকল মেধাবী স্টুডেন্টদের জন্য সবচেয়ে বড় সরকারী স্কলারশিপ। মেধাবী স্টুডেন্টদের উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে আর্থিক দুর্বলতা যাতে কোনরকম বাধা না হয়ে দাঁড়ায়, তাই পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে এই স্কলারশিপ টি দেওয়া হয়। প্রত্যেক বছর বহু মেধাবী ছাত্র ছাত্রী এই স্কলারশিপের আওতায় তাদের উচ্চশিক্ষা সম্পূর্ণ করার সুযোগ পায়। আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আমরা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022-2023 সম্পর্কিত যাবতীয় গুরুত্বপূর্ন তথ্য আপনাদের কাছে তুলে ধরবো। কাজেই আপনি যদি এই স্কলারশিপে আবেদন করতে ইচ্ছুক হন, তাহলে প্রতিবেদনটি অবশ্যই মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ
স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ কি

পশ্চিমবঙ্গে আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া মেধাবী স্টুডেন্টদের আর্থিক সহায়তা করার জন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে যেসকল বৃত্তি (Scholarship) প্রকল্পের মাধ্যমে অনুদান প্রদান করা হয়। সেগুলির মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় স্কলারশিপ হলো স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপ টিকে অনেকেই বিকাশ ভবন স্কলারশিপ নামেও চেনে। যেসব স্টুডেন্টরা 2022 সালে মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক অথবা গ্র্যাজুয়েশন পাস করে নতুন কোর্সে ভর্তি হয়েছে, তারা এই স্কলারশিপে আবেদন করে প্রতিমাসে সর্বনিম্ন 1000 টাকা এবং সর্বোচ্চ 8000 টাকা অনুদান হিসেবে পেতে যেতে পারে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ কারা পাবে বা কারা আবেদন করতে পারবে

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করে বৃত্তি অনুদান পাওয়ার জন্য আবেদনকারীকে নিম্নলিখিত ক্রায়টেরিয়া গুলি অবশ্যই পূরণ করতে হবে।

১. বৃত্তি আবেদনকারী শিক্ষার্থীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।

২. আবেদনকারী শিক্ষার্থীর পারিবারিক বাৎসরিক আয় 2.5 লক্ষ টাকার কম হতে হবে, তবেই সে SVMCM বৃত্তির জন্য এই আবেদন করতে পারবে।

৩. যেসকল শিক্ষার্থীরা 2022 সালে মাধ্যমিক/ উচ্চমাধ্যমিক/ গ্র্যাজুয়েশনে পর্যাপ্ত নাম্বার নিয়ে পাশ করে নতুন কোর্সে ভর্তি হয়েছে, কেবল তারাই এই স্কলারশিপ পাবে। কোন কোর্সে কত শতাংশ নাম্বার পেলে স্কলারশিপে আবেদন করা যাবে তা নিচে বিস্তারিত জানিয়ে দেওয়া আছে।

  • উচ্চমাধ্যমিক (HS) স্তরে পড়াশোনার জন্য: উচ্চমাধ্যমিক স্তরে স্কলারশিপ বৃত্তি লাভ করার জন্য শিক্ষার্থীকে মাধ্যমিক পরীক্ষায় 60% নাম্বার পেতে হবে। এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীকে ক্লাস XI এ ভর্তি হবার পর স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে হয়।
  • ডিপ্লোমা কোর্সে (পলিটেকনিক বা অন্যান্য) পড়াশোনার জন্য: ডিপ্লোমা কোর্স স্তরে স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য শিক্ষার্থীকে মাধ্যমিক অথবা উচ্চমাধ্যমিক অথবা সর্বশেষ সমতুল্য পরীক্ষায় ন্যূনতম 60% নম্বর পেতে হবে।
  • আন্ডার গ্রাজুয়েট বা স্নাতকস্তরে (অনার্স, ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিকেল ও অন্যান্য পেশাগত কোর্স) পড়াশোনার জন্য: স্নাতকস্তরে স্কলারশিপ বৃত্তিতে আবেদন করার জন্য শিক্ষার্থীকে অবশ্যই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় 60% নম্বর পেতে হবে।
  • পোস্ট গ্রাজুয়েট বা স্নাতকোত্তর (PG) স্তরে পড়াশোনার জন্য: পোস্ট গ্রাজুয়েট বা PG কোর্স স্তরে স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য প্রার্থীদের স্নাতকস্তরে (UG কোর্সে) কমপক্ষে 53% নম্বর থাকতে হবে। এক্ষেত্রে কন্যাশ্রী (K3) আবেদনকারী মেয়ে শিক্ষার্থীদের UG কোর্সে 45% নম্বর পাওয়া দরকার।
  • গবেষণা স্তরের (NON NET M.PHIL./NON NET PH.D) প্রার্থীদের জন্য: এক্ষেত্রে স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য প্রার্থীদের কোনো নিদিষ্ট নম্বর এর প্রয়োজন হয় না। তবে প্রার্থীদের তালিকাভুক্তির তারিখ/নিবন্ধনের তারিখ 01.04.2017 এর পরে হতে হবে।

উপরে উলেক্ষিত প্রয়োজনীয় যোগ্যতাগুলি পূরণ করলে শিক্ষার্থীরা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ পাবে বা স্কলারশিপে আবেদন করার যোগ্য হিসেবে বিবেচিত হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে কারা আবেদন করতে পারবে না

উপরে দেওয়া এলিজিবিটি ক্রায়টেরিয়া গুলি পূরণ করার পরেও কোন স্টুডেন্টরা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবে না, তাদের ব্যাপারে এখানে জানানো হলো।

১. যেসব স্টুডেন্টরা বর্তমান কোর্সে অধ্যয়ন করার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে অন্য কোনো সরকারী স্কলারশিপের টাকা পাচ্ছে তারা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবে না।

২. যেসব শিক্ষার্থীরা 2021 সাল বা তার আগে মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক অথবা গ্র্যাজুয়েশন পাস করেছে, কিন্তু কোনো কারণ বশত সেই বছর নতুন কোর্সে ভর্তি না হয়ে 2022 সালে ভর্তি হচ্ছে তারা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবে না। এককথায় ড্রপ আউট স্টুডেন্টরা SVMCM 2022 বৃত্তি প্রকল্পে আবেদন করতে পারবে না।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে কত টাকা পাওয়া যায়

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে কত টাকা পাওয়া যাবে, সেটা শিক্ষার্থীর বর্তমান কোর্সের ভিত্তিতে বিবেচিত হয়। নিচের টেবিলে কোর্স অনুসারে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের প্রতি মাসে বৃত্তি হার দেওয়া হলো।

বর্তমান কোর্সস্কলারশিপ টাকার পরিমাণ
উচ্চমাধ্যমিক (XI+XII)প্রতি মাসে 1000 টাকা
ডিপ্লোমা (পলিটেকনিক বা অন্যান্য)প্রতি মাসে 1500 টাকা
ডি.এল.এড (D.El.Ed)প্রতি মাসে 1000 টাকা
স্নাতক আর্টস/কমার্স (UG ARTS/COMM)প্রতি মাসে 1000 টাকা
স্নাতক সায়েন্স/অন্যান্য পেশাগত কোর্স (UG SCI/OTHER PROFESSIONAL COURSES)প্রতি মাসে 1500 টাকা
স্নাতক ইঞ্জিনিয়াররিং/মেডিকেল (UG ENGG/MEDICAL)প্রতি মাসে 5000 টাকা
স্নাতকোত্তর আর্টস/কমার্স (PG ARTS/COMM)প্রতি মাসে 2000 টাকা
স্নাতকোত্তর সায়েন্স/অন্যান্য পেশাগত কোর্স (PG SCI/OTHER PROFESSIONAL COURSES)প্রতি মাসে 2500 টাকা
স্নাতকোত্তর ইঞ্জিনিয়াররিং (PG ENGG)প্রতি মাসে 5000 টাকা
নন নেট এমফিল (NON NET M.PHIL.)প্রতি মাসে 5000 টাকা
নন নেট পিএইচ.ডি. (NON NET PH.D.)প্রতি মাসে 8000 টাকা

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এ কি কি ডকুমেন্ট লাগবে

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে ফ্রেশ আবেদনর জন্য শিক্ষার্থীকে নিম্নলিখিত ডকুমেন্ট গুলো আপলোড করতে হবে।

  1. মাধ্যমিক পরীক্ষার মার্কশিট (উভয় দিক)
  2. গত বোর্ড/কাউন্সিল/কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষার মার্কশিট (উভয় দিক)
  3. নতুন কোর্সে ভর্তি হবার রশিদ
  4. পরিবারের বার্ষিক ইনকাম সার্টিফিকেট (কন্যাশ্রী (K3) আবেদনকারী শিক্ষার্থীর জন্য প্রযোজ্য নয়)
  5. ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসেবে আধার কার্ড/ভোটার কার্ড/রেশন কার্ড
  6. ব্যাংক পাসবুকের প্রথম পৃষ্টার স্ক্যান কপি

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের রিনুয়াল আবেদন করার জন্য শুধুমাত্র দুটি নিচের ডকুমেন্ট লাগে।

  1. লাস্ট পরীক্ষার মার্কশিটের কপি (উভয় দিক এবং সেমিস্টার পদ্ধতিতে পরীক্ষা হলে, উভয় সেমিস্টারের মার্কশিট দিতে হবে)
  2. পরবর্তী কোর্স/শ্রেণীতে ভর্তির রশিদ

শিক্ষার্থীদের এইসব ডকুমেন্ট গুলো স্ক্যান করে পিডিএফ আকারে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। এক্ষেত্রে পিডিএফ ফাইলের সাইজ 400KB এর বেশি হওয়া চলবে না।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 অনলাইন আবেদন পদ্ধতি

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 এর জন্য অনলাইন আবেদন কীভাবে করবেন, তার পদ্ধতি নিচে ছবিসহ দেখানো হল।

১. স্কলারশিপে ফ্রেশ আবেদন করার জন্য আবেদনকারীকে সবার প্রথমে svmcm.wbhed.gov.in সাইটে এসে রেজিষ্টেশন (Registration) অপশনে ক্লিক করতে হবে।

রেজিষ্টেশন (Registration) অপশনে ক্লিক

২. এরপর আবেদনকারীর বর্তমান কোর্স অনুযায়ী রেজিষ্টেশন ক্যাটাগরী থেকে Direcetore বেছে নিয়ে Apply For New Registration অপশনে ক্লিক করতে হবে। কোন স্তরের (কোর্স) জন্য কোন Direcetore নির্বাচন করতে হবে তা টেবিল আকারে নিচে দেওয়া হল।

Direcetore নির্বাচন করতে হবে
কোর্সের নামDirecetore নাম
উচ্চমাধ্যমিক (XI – XII)DIRECTORATE OF SCHOOL EDUCATION (DSE)
স্নাতক ও স্নাতকোত্তর (UG & PG)DIRECTORATE OF PUBLIC INSTRUCTION (DPI)
পলিটেকনিক কোর্সDIRECTORATE OF TECHNICAL EDUCATION AND TRAINING (DTE&T)
ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রী কোর্সDIRECTORATE OF TECHNICAL EDUCATION (DTE)
মেডিকেল কোর্সDIRECTORATE OF MEDICAL EDUCATION (DME)

৩. এবার আবেদনকারী পার্থীকে নিজের সম্পর্কে কিছু বেসিক তথ্য (যেমন নাম, ঠিকানা, বয়স, মোবাইল নম্বর, বোর্ডের নাম, পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর, ভর্তির তারিখ ইত্যাদি) দিয়ে একটি ফর্ম ফিলাপ করতে হবে এবং সাথে একটি পাসওয়ার্ড লিখে নিচের Register বাটনে ক্লিক করতে হবে।

নিজের সম্পর্কে কিছু বেসিক তথ্য
পাসওয়ার্ড লিখে

৪. সবকিছু সঠিক ভাবে লিখে রেজিষ্টার করলে, মোবাইল OTP এর মাধ্যমে পার্থীর মোবাইল নম্বর ভেরিফিকেশন কমপ্লিট হবে এবং সাথে একটি Applicant ID ও Password পেয়ে যাবেন। পরবর্তীকালে অ্যাপ্লিকেশনে লগইন বা রিনিউ করতে এই আইডি ও পাসওয়ার্ড এর দরকার পড়বে, তাই এটিকে অবশ্যই নোট করে রাখুন।

Applicant ID ও Password

৫. এবার SVMCM পোর্টালের হোমপেজে এসে Aplicant login অপশনে ক্লিক করে Applicant ID ও Password দিয়ে লগইন করতে হবে এবং Edit Profile বাটনে ক্লিক করে আবেদনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

Aplicant login
Edit Profile

৬. এখন আবেদনকারী শিক্ষার্থীর ছবি ও সই আপলোড করে Save & Next অপশনে ক্লিক করতে হবে। এক্ষেত্রে ফাইল JPG/JPEG ফরম্যাটে আপলোড করতে হবে এবং ফাইলের সাইজ যথাক্রমে 20KB-50KB এবং 10KB-20KB এর মধ্যে হতে হবে ।

ছবি ও সই আপলোড

৭. এবার আবেদনকারী পার্থীকে নিজের সম্পর্কে আরও কিছু পার্সোনাল তথ্য এবং ব্যাঙ্ক ডিটেল লিখে Save & Next অপশনে ক্লিক করতে হবে।

ব্যাঙ্ক ডিটেল লিখে

৮. পরের পেজে উপরে উল্লেখিত সমস্ত জরুরি ডকুমেন্ট গুলো স্ক্যান করে পিডিএফ ফরম্যাটে আপলোড করতে হবে এবং অ্যাপ্লিকেশন সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৯. সর্বশেষে সবকিছু সঠিক ভাবে পূরণ করা হয়েছে কিনা তা ভালোভাবে যাচাই করে Finalize Application অপশনে ক্লিক করলেই স্কলারশিপের অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রিনুয়াল কারা এবং কীভাবে করবে

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রিনুয়াল কারা করতে পারবে:

১. যেসকল শিক্ষার্থীরা প্রথম প্রচেষ্টায় উচ্চমাধ্যমিক/ পলিটেকনিক/ স্নাতক (UG) কোর্সের প্রথম বছরে 60% নম্বর পেয়েছে, তারাই একমাত্র স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রিনুয়াল করার যোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

২. স্নাতকোত্তর (PG) কোর্সের ক্ষেত্রে প্রথম বছরে (প্রথম প্রচেষ্টায়) 50% নম্বর পাওয়া স্টুডেন্টরা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রিনুয়াল করার জন্য যোগ্য হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রিনুয়াল করার পদ্ধতি:

১. স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রিনুয়াল করার জন্য আবেদনকারীকে সবার প্রথমে গতবছরের Applicant ID ও Password দিয়ে SVMCM সাইটে লগইন করে নিতে হবে।

২. এরপরে ড্যাশবোর্ডের বামদিকে Edit Renewal Application অপশনে ক্লিক করে কিছু জরুরি ডিটেইলস (আধার নম্বর/লাস্ট পরীক্ষা/কত নম্বর পেয়েছো ইত্যাদি) ফিলাপ করে Save & Next অপশনে ক্লিক করতে হবে।

Edit Renewal Application

৩. এবার শেষ পরীক্ষার মার্কশিট এবং নতুন শ্রেণীতে ভর্তির রশিদ পিডিএফ ফরম্যাটে আপলোড করে রিনুয়াল অ্যাপ্লিকেশনটি সাবমিট করতে হবে। এক্ষেত্রে বলে রাখি যাদের সেমিস্টার সিস্টেমে পরীক্ষা হয়েছে, তাদেরকে উভয় সেমিস্টারের মার্কশিট আপলোড করতে হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ স্ট্যাটাস চেক কীভাবে করবে

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ স্ট্যাটাস চেক করার জন্য SVMCM ওয়েবসাইটে লগইন করে Track Application অপশনে ক্লিক করতে হয়। এখান থেকে আপনি খুব সহজেই আপনার স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের বর্তমান অ্যাপ্লিকেশন স্ট্যাটাস কি অবস্থায় রয়েছে তা দেখে নিতে পারেন।

স্ট্যাটাস চেক

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 লাস্ট ডেট (Last Date) কবে

17 আগস্ট 2022 থেকে একাদশ/ দ্বাদশ শ্রেণির স্টুডেন্টদের জন্য স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 -এর ফ্রেশ/ রিনুয়াল আবেদনের অনলাইন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। স্কলারশিপে আবেদন করার লাস্ট ডেট (Last Date) সম্পর্কে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট কোনো তথ্য জানায়নি। এছাড়া কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ছাত্রীরা কবে থেকে নতুন আবেদন করতে পারবে, তার কোনো অফিসিয়াল ডেট ঘোষণা হয়নি। তবে আশা করা হচ্ছে অক্টোবর মাস থেকে সেগুলি চালু করা হবে।

Application TypeOpening DateLast Date
ফ্রেশ অ্যাপ্লিকেশন 2022 (শুধুমাত্র একাদশ শ্রেণি)17.08.2022জানায়নি
রিনুয়াল আবেদন (শুধু দ্বাদশ শ্রেণী)17.08.2022জানায়নি

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর টাকা কবে ঢুকবে

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করা যেসকল ছাত্র ছাত্রীদের অ্যাপ্লিকেশন স্ট্যাটাস Sanctioned দেখাচ্ছে, তারা 15 থেকে 20 দিনের মধ্যে স্কলারশিপের পুরো টাকা তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পেয়ে যাবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ ফরম ফিলাপ

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ ফরম ফিলাপ শুধুমাত্র অনলাইনে svmcm.wbhed.gov.in ওয়েবসাইটের মাধ্যমে হয়। এর জন্য অফলাইনে কোনো ফর্ম ফিলাপ বা হার্ড কপি জমা করতে হয় না। এই স্কলারশিপের জন্য কীভাবে ফরম ফিলাপ করবেন তার ইউজার ম্যানুয়াল পিডিএফ ডাউনলোড করতে 👉 এখানে ক্লিক করুন

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ সম্পর্কিত যেকোনো প্রশ্ন বা ডাউট থাকলে তোমরা আমাদের কমেন্ট করে জানতে পারো, আমরা সেবিষয়ে অবশ্যয় গাইড করবো। চটজলদি যেকোনো স্কলারশিপ সম্পর্কিত আপডেট পাওয়ার জন্য আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হতে ভুলবেন না। নিচে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ সম্পর্কিত কিছু জরুরি প্রশ্নের উত্তর দেওয়া রইলো।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন (FAQ)

জেনারেল ক্যাটাগরির স্টুডেন্টরা কি স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবে?

হ্যাঁ, সমস্ত ক্যাটাগরির স্টুডেন্টরা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবে।

B.ED কোর্সের স্টুডেন্টরা কী স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে?

হ্যাঁ, B.ED কোর্সের স্টুডেন্টরা এই স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবে।

ওয়েসিস স্কলারশিপ এবং স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপ কি একসাথে আবেদন করা যেতে পারে?

অফিসিয়াল নিয়ম অনুযায়ী একসাথে দুটি সরকারী স্কলারশিপে আবেদন করা যেতে পারে না। যদি কেউ একসাথে ওয়েসিস ও স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করে, তাহলে সেক্ষেত্রে সবার প্রথমে অ্যাপ্রুভ হওয়া স্কলারশিপের টাকাটি পাওয়া যাবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে একাদশ শ্রেণির স্টুডেন্টরা কত টাকা পাবে?

বছরে 12000 টাকা

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে দ্বাদশ শ্রেণির স্টুডেন্টরা কত টাকা পাবে?

বছরে 12000 টাকা

ডিপ্লোমা কোর্স করা স্টুডেন্টরা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের আওতায় কত টাকা পাবে?

বছরে 18000 টাকা

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আন্ডার গ্রাজুয়েট (UG) স্তরের স্টুডেন্টরা কত টাকা পাবে?

বছরে 12000 টাকা থেকে 60000 টাকা পর্যন্ত

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে পোস্ট গ্রাজুয়েট (PG) স্তরের স্টুডেন্টরা কত টাকা পাবে?

বছরে 24000 টাকা থেকে 60000 টাকা পর্যন্ত

3 thoughts on “স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022-2023 | Swami Vivekananda Scholarship (SVMCM)”

Leave a Comment