ভ্যালেন্টাইন্স ডে এর ইতিহাস | বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের কাহিনী

১৪ই ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস (ভ্যালেন্টাইন্স ডে)। প্রতি বছর বিশ্বের সমস্ত প্রেমিক প্রেমিকারা এই দিনটি খুব উৎসাহের সাথে পালন করে। এই দিন সবাই তাদের ভালোবাসার মানুষকে ফুল, চকোলেট ও গিফট দিয়ে ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা জানায় এবং প্রেম প্রকাশ করে।

ভালোবাসা দিবসে, কাপালসরা একসাথে সময় কাটাই ও সারাজীবন একসঙ্গে থাকার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়। এই দিন সকলের মতো আপনিও হয়তো আপনার মনের মানুষটির সাথে ভ্যালেন্টাইন্স ডে উদযাপন করার কোনো বিশেষ পরিকল্পনা করেছেন।

কিন্তু আপনি কী জানেন, এই ভ্যালেন্টাইন্স ডে এর ইতিহাস কী? অথবা ভ্যালেন্টাইন্স ডে দিনটি কেন পালন করা হয় ? প্রত্যেক উৎসবের মতো ভালোবাসা দিবসেরও কাহিনী আছে, যা আমাদের সকলের জেনে রাখা দরকার।

ভ্যালেন্টাইন্স ডে এর ইতিহাস (বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের কাহিনী)

ভ্যালেন্টাইন্স ডে এর ইতিহাস
ভ্যালেন্টাইন্স ডে এর ইতিহাস

আসলে “ভ্যালেন্টাইনস” কোনও দিনের নাম নয়, এটি রোমের এক পাদরির (ধর্মযাজক) নাম। “অরিয়া অফ জ্যাকবাস ডি ভোরাজিন” গ্রন্থ অনুযায়ী, তৃতীয় শতাব্দীতে রোম সম্রাট ক্লোডিয়াস- এর শাসনকালে সেন্ট ভ্যালেন্টাইনস সেখানকার বিখ্যাত পাদরি তথা চিকিৎসক ছিলেন।

রাজা ক্লোডিয়াস তাঁর রাজ্যকে শক্তিশালী করার জন্য একটি বিশাল সেনাবাহিনী তৈরি করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি দেখেন যেসব সৈনিকদের স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে তারা যুদ্ধক্ষেত্রে লড়তে চায় না। সেই কারণে শাসক ক্লোডিয়াস ক্রুদ্ধ হয়ে একটি নিয়ম বানিয়েছিলেন, যার ভিত্তিতে তিনি ভবিষ্যতে সমস্ত সৈনিকদের বিবাহ নিষিদ্ধ করেছিলেন।

সবাই এই নিয়মের বিরুদ্ধে ছিল, কিন্তু কেউই শাসকের বিরুদ্ধে বলতে সাহস পাইনি। তবে পাদরি সেন্ট ভ্যালেন্টাইন এর তীব্র বিরোধীতা করেছিলেন এবং তিনি গোপনে সৈনিকদের বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ করতে থাকেন। কিন্তু শাসক একদিন এই খবর জেনে যায় এবং নিয়ম ভঙ্গ করার অপরাধে ভ্যালেন্টিনকে কারাগারে বন্দি করেন।

সেন্ট ভ্যালেন্টাইনস যখন কারাগারে বন্দি ছিলো, তাঁর অনুগামীরা গোলাপ ও উপহার নিয়ে তার সাথে দেখা করতে আসতো এবং খ্রীস্টধর্ম গ্রহণ করতো। এছাড়াও বন্দি অবস্তায় তিনি অলৌকিক চিকিৎসা শক্তির দ্বারা এক কারারক্ষীর অন্ধ মেয়ের দৃষ্টি শক্তি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

ভ্যালেন্টাইনের এই অলৌকিক শক্তির কথা জানতে পেরে বহু মানুষ তার দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে খ্রীস্টধর্ম গ্রহণ করে। কারাগারে ভ্যালেন্টাইনের জনপ্রিয়তা ক্রমশ বাড়তে দেখে রাজা ক্রুদ্ধ হয়ে ভ্যালেন্টাইনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেয়।

সেন্ট ভ্যালেন্টাইনস কে 14 ফেব্রুয়ারি ২৬৯ খ্রিস্টাব্দে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। এবং মারা যাওয়ার আগে তিনি তাঁর অনুগামীদের উদ্দেশে একটি চিঠি লিখেছিলেন, যাতে তিনি ভালোবাসাকে বাঁচিয়ে রাখার অনুরোধ করেছিলেন। সেই চিঠির শেষে লেখা ছিল “লাভ ফ্রম ইওর ভ্যালেন্টাইন”। তাই সেই দিন থেকে আজ অবধি 14 ফেব্রুয়ারী সেন্ট ভ্যালেন্টাইনস– এর স্মরণে ভালোবাসা দিবস উজ্জাপন করা হয়।

Read More:- ভ্যালেন্টাইন ডে কবিতা

ভ্যালেন্টাইন্স ডে লিস্ট 2021 (ভালোবাসা দিবস কবে)

ভ্যালেন্টাইন্স ডে লিস্ট 2021
ভ্যালেন্টাইন্স ডে লিস্ট 2021

ভ্যালেন্টাইনস ডে শুধুমাত্র একদিন নয়, এটি পুরো সপ্তাহ জুড়ে পালিত হয়। ভ্যালেন্টাইনস ডে উত্সবটি 7 ফেব্রুয়ারি থেকে 14 ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলে এবং এর প্রতিটি দিনকে একটি বিশেষ নাম দেওয়া হয়েছে। 2021 সালের ভ্যালেন্টাইনস ডে লিস্ট নিচে দেয়া হলো।

ভ্যালেন্টাইনস ডে লিস্ট 2021তারিখ
রোজ ডে7 ই ফেব্রুয়ারী, 2021
প্রোপোজ ডে8 ই ফেব্রুয়ারী, 2021
চকোলেট ডে9 ই ফেব্রুয়ারী, 2021
টেডি ডে10 ই ফেব্রুয়ারি 2021
প্রমিস ডে11 ই ফেব্রুয়ারি 2021
হাগ ডে12 ই ফেব্রুয়ারি 2021
কিস ডে13 ই ফেব্রুয়ারী, 2021
ভ্যালেন্টাইস ডে14 ই ফেব্রুয়ারী, 2021

৭ ই ফেব্রুয়ারি রবিবার রোজ ডে: এবছর ভ্যালেন্টাইন উইকের প্রথম দিন রোজ ডে ৭ ই ফেব্রুয়ারি রবিবার। এদিন প্রেমিক প্রেমিকারা একে অপরকে লাল গোলাপ এবং বন্ধুরা একে অপরকে হলুদ রঙের গোলাপ দিয়ে রোজ ডে উজ্জাপন করে।

৮ ই ফেব্রুয়ারি সোমবার প্রপোজ ডে: ভ্যালেন্টাইন সপ্তাহের দ্বিতীয় দিনটি হলো প্রোপোজ ডে। এদিন ভালোবাসার মানুষটিকে নিজের মনের কথা জানিয়ে প্রপোজ করার দিন।

৯ ই ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার চকোলেট ডে: প্রোপোজ ডে এর পরে আসে চকোলেট ডে। এদিন মনের মানুষটিকে চকোলেট দিয়ে চকোলেট ডে পালন করা হয়।

১০ ই ফেব্রুয়ারি বুধবার টেডি ডে: চকোলেট দিয়ে মিষ্টি মুখ করার পরে এবার একে অপরকে গিফট দেবার পালা। এদিন আপনি আপনার প্রিয়তমাকে একটি মিষ্টি টেডি গিফট দিতে পারেন।

১১ ই ফেব্রুয়ারি বৃহঃস্পতিবার প্রমিস ডে: টেডি ডে এর পরের দিন হলো প্রমিস ডে। এদিন প্রেমিক- প্রেমিকা এবং কাপালসরা সারাজীবন একসঙ্গে থাকার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়।

১২ ই ফেব্রুয়ারি শুত্রুবার হাগ ডে: এবছর হাগ ডে ১২ ই ফেব্রুয়ারি শুত্রুবার। ভ্যালেন্টাইন উইকের এই দিন ভালোবাসার মানুষটিকে আলিঙ্গন করে উদযাপন করা হয়।

১৩ ই ফেব্রুয়ারি শনিবার কিস ডে: কিস ডে তে প্রেমিক প্রেমিকারা একে অপরকে চুম্বন করে ভালোবাসা প্রকাশ করে।

১৪ ই ফেব্রুয়ারি রবিবার ভ্যালেন্টাইন ডে: ১৪ ই ফেব্রুয়ারি রবিবার ভ্যালেন্টাইন উইকের শেষ দিন। এই দিন প্রেমিক প্রেমিকারা সারাদিন একসাথে সময় কাটাই এবং মুভি দেখা অথবা পার্কে ঘুরে বেড়ানোর পরিকল্পনা করে থাকে।

Final Word

আমাদের ওয়েবসাইটি ভিসিট করার জন্য় ধন্যবাদ, আসা করছি আমাদের এই পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে নিচের কমেন্ট বক্স-এ কমেন্ট করে আমাদের কাজটির প্রশংসা করতে ভুলবেন না।

আমাদের জনপ্রিয় পোস্ট গুলি পড়ুন:-

অনুগ্ৰহ করে নোট করবেন:- আমাদের পোস্ট গুলো নিয়মিতভাবে আপডেট করা হয়। তাই আরো ভ্যালেন্টাইন্স ডে এর তথ্য় পেতে পেতে আমাদের সঙ্গে সংযুক্ত থাকুন।

Leave a Comment